Posted on Leave a comment

যেকোনো ধরণের জিনিসপত্র বিক্রি করুন অথবা অল্প দামে পণ্য কিনুন।

Hey Friend’s! 
আশা করি আপনারা সকলে অনেক ভালো আছেন? 

আজকে আমি আপনাদের মাঝে এমন একটি সাইট নিয়ে এলাম যেটা সকলের হয়তো বেশি অচে না নয়। 

তবুও আমি নতুন করে তার সাথে আপনাদেরকে আজ পরিচয় করিয়ে দিবো! 

মনে করেন,
আপনার একটি ওয়েবসাইট রয়েছে সেটা আপনি ব্যবহার করেন না। 
সেইটা বিক্রি করতে চাইছেন! 

আমার দেখানো ওয়েবসাইটের মধ্যে আপনি আপনার এই ওয়েবসাইটটি বিক্রি করতে পারবেন। 

অথবা,
মনে করেন আপনি কোনো একটি ওয়েবসাইট কিনবেন! 
নতুন করে তৈরী করতে চাইছেন না! 
পুরাতন সাইট কিনতে চান কম দামে! 

আপনি এই সাইট থেকেই কিনতে পারবেন। 

বিক্রেতার সঙ্গে সরাসরি কথা বলে! 

কিছু কথাঃ

আপনি যখন কোনো জিনিস বিক্রি করবেন এই সাইটে তখন সুন্দরভাবে সব জিনিস গুলো দিবেন! 
তার ফলে যারা এটা কিনবে তাদের এক দেখাতেই পছন্দ হয়ে যাবে! 

এবং আপনি যখন এই সাইট থেকে কোনো জিনিস কিনবেন তখন সরাসরি বিক্রেতার সাথে কথা বলবেন। 

এবার আসুনঃ

সবার প্রথম উল্লেখযোগ্য সাইটটিতে আমরা এখন একাউন্ট তৈরী করব। 

সবার প্রথম নিচের লিংকে যানঃ-





[img id=3605]


এবার Register এ ক্লিক করুন। 

[img id=3606]


সবকিছু দিয়ে একাউন্ট তৈরী করুন। 
একাউন্ট তৈরীর সময় আপনার মেইলে কোনো ভেরিফাই লিংক যাবে না। 
তবে কখনোই ভুল মেইল দিবেন না। 
অনেক সময় কিছু বিক্রির জন্য মেইল দরকার হতে পারে। 

[img id=3607]


এবার আপনার একটি ছবি এখানে দিন। 
ছবি অবশ্যয় দিতে হবে। 

[img id=3608]


এবার আসুন সবার প্রথমে আমরা দেখবো যে কিভাবে এখানে জিনিস বিক্রি করতে হয়? 


তো দেখানো মেনুতে ক্লিক করুন। 

[img id=3609]


এবার My Product এ ক্লিক করুন। 

[img id=3610]


এবার New বাটনে ক্লিক দিন। 

[img id=3611]


Name :  আপনি যা বিক্রি করতে চান সেটার নাম দিন। 
Price : আপনি কতো টাকায় জিনিসটা বিক্রি করবেন? 
Category : আপনি যেটা বিক্রি করবেন সেইটা কোন ভাগে পড়বে? 
Type : আপনি যেটা বিক্রি করবেন সেটা নতুন না পুরাতন? 
Location : আপনার ঠিকানা। 

[img id=3612]


Currency : যদি বাংলাদেশী হয় তাহলে BDT সিলেক্ট করুন। 
Description : এখানে জিনিসটির বর্ণনা দিন। 

এবার Photos এর নিচে ক্যামেরা আইকোণে ক্লিক করে আপনার বিক্রি করা জিনিসটির ছবি দিন। 

সব কিছু ঠিক থাকলে Publish এ ক্লিক করুন। 



[img id=3613]


এবার আসুন দেখি কিভাবে জিনিসপত্র কিনবো? 

এরজন্য আবারও মেনুতে ক্লিক করুন। 
এরপর দেখানো Market এ ক্লিক করুন। 





[img id=3615]


এবার আপনার সামনে অনেক গুলো বিক্রির পোডাক্ট থাকবে। 
আপনার যেটা পছন্দ হবে,
সেটার উপর টার্চ করুন। 
দুইটা অপশেন আসবে তো Contact Seller এ ক্লিক করুন। 






[img id=3616]


এবার সরাসরি বিক্রেতার সঙ্গে কথা বলে পণ্যটি কিনে নিন। 

সতর্ক বার্তাঃ

আপনি যখন কোনো পণ্য কারো থেকে কিনবেন! 
তখন অবশ্যয় দেখে নিবেন তার একাউন্টে তার ফোন নাম্বার, তার মেইল, তার অন্যান্য বিষয় গুলো দেওয়া আছে কি? 

যদি থাকে তাহলে তার থেকে জিনিসটা নিবেন।
যদি না থাকে তাহলে দিতে বলবেন। 
তাছাড়া যেকোনো ধরণের সমস্যায় Contact Us পেজে গিয়ে মেসেজ করুন। 

★ধন্যবাদ★
Posted on Leave a comment

গেইম খেলেন তখনই দুষ্ট বন্ধুর কল বিরক্ত করে? নিয়ে নিন সমাধান।

গেইম খেলতে ভালোবাসেন? কিন্তু যখনইগেইম খেলতে ভালোবাসেন? কিন্তু যখনই গেইম খেলেন তখনই দুষ্ট বন্ধুর কল বিরক্ত করে? বা গেইমের সময় হঠাৎ কোন নোটিফিকেশন এসে গেইমের সব মজা নষ্ট করে দেয়? তাহলে এই পোস্টটি আপনার জন্যই।

দুষ্ট বন্ধুকে কখনো থামানো সম্ভব নয়, তাই তাদের কলকে থামাতে আমাদের প্রয়োজন হবে একটি এপ। এই এপটির নাম হলো “Gaming Mode” (গেমিং মোড)। এপটি ডাউনলোড করে নিন প্লেস্টোর থেকে–
click heare to download

1.এপটি ডাউনলোড হয়ে গেলে এপে ডুকে উপরের স্ক্রিনশটের মতো প্লাস সাইনে ক্লিক করুন।

2.যে গেইমগুলো এড করতে চান সেগুলোর পাশে টিক দিয়ে “Save” এ ক্লিক করুন।

3.গেইমটি যুক্ত হয়ে গেলে গেইমের পাশে “গিয়ার” বাটনটি ক্লিক করুন (উপরের মতো)

4.অপশনগুলো থেকে নিচের দিকে গেলে “Auto Reject” এবং“Notification Blocking” অপশন পাবেন। সেগুলো চালু করে দিন। তাহলেই কাজ শেষ।

আর কেও এখন আপনাকে বিরক্ত করতে পারবে না উক্ত সিলেক্ট করা গেম গিলো খেলতে এমনকি নটিফিকেশন ও আসবে না।

আমার ইউটিওব চ্যানেলটি সাবসক্রাইব করার জন্য অনুরোধ রইল।

SUBSCRIBE NOW

Posted on 4 Comments

এখন হাত দিয়ে মােবাইল চালানাের দিন শেষ! আধুনিক পদ্ধতিতে ফোন চলবে আপনার মুখের কথায় দেখুন কিভাবে??

[h2][Start][/h2]
[h2]প্রথমে app টি Download করুনঃ[/h2]
[img id=3483]
[h2]এবার open এ ক্লিক করুনঃ[/h2]
[img id=3485]
[h2]এবার ok তে ক্লিক করুনঃ[/h2]
[img id=3488]
[h2]এবার voice Assess এ ক্লিক করুনঃ[/h2]
[img id=3490]
[h2]এবার এখানে ক্লিক করুনঃ[/h2]
[img id=3493]
[h2]এবার ok তে ক্লিক করুবঃ[/h2]
[img id=3498]
[h2]এবার continue তে ক্লিক করুনঃ[/h2]
[img id=3500]
[h2]এবার Next এ ক্লিক করুবঃ[/h2]
[img id=3502]
[h2]এবার মোট 4 বার Next এ ক্লিক করুনঃ[/h2]
[img id=3504]
[h2]এবার Finish এ ক্লিক করুনঃ[/h2]
[img id=3506]
[h2]এবার এখানে ক্লিক করুন এবং নিজের voice camand দিনঃ[/h2]
[img id=3508]
[h2]আপনার ফোনের এই অংশে নিজের voice camand দিতে হবেঃ[/h2]
[img id=3511]
[h2][end][/h2]

Posted on 3 Comments

ইন্টারনেট ব্যবহার করুন আগের থেকে ২গুণ কম মেগাবাইট খরচে।

[start]

আমার ফোনো জিপিতে খুবই কম নেট কাটে। 
তবে, আজ হঠাৎ আমি ১জিবি কিনলাম এবং কেনার পর ২০মিনিট ব্রাউজিং করি। 
এরপর আমি যখন আমার মেগাবাইট চ্যাক করি তখন দেখে আমার মাথা ঘুরে গেলো! 😵

মাত্র ২০মিনিটে যেখানে আমার ২০-৩০ মেগাবাইট শেষ হয় সেখানে কিনা আমার ৭৯৪মেগাবাইট খরচ হয়ে গেলো!

এটা দেখে কার না মাথা ঘুড়বে। 

এরপর আরেকবার ডাটাঅন করলাম, আর শুধু একটা ব্রাওজারে ওপেন হয়ে “https://twicebd.com” লিখে ভিজিট করলাম। 
আর ডাটা অফ করে দিলাম। 

এই টুকুর জন্য অন্যসময় বেশি কাটলে 0.05 MB খরচ হতো। 
তবে এখন দেখলাম  5.76 MB কেটে নিয়েছে। 

বিষয়টি দেখে আমি অবাক হয়ে গেলাম! 

যাক পরে একে একে নানান পদ্ধতি ব্যবহার করে দেখতে থাকলাম। 

কিছুতেই কিছু হলো না। 
শেষে একটা সেটিং চালু করার পর দেখি মেগাবাইট অনেক কম কাটছে আগের তূলনায়! 

এটা দেখেও অবাক হয়ে গেলাম। 

আর মনে করতে লাগলাম যে, আপনাদেরও একটু অবাক করে দেই। 

তাই কন্টেন্টি সঙ্গে সঙ্গে লিখে ফেললাম। 
তবে আমার মনে হয় এই বিষয়টি অনেকেই জানে, তবে এটা যারা জানে না তাদের জন্যঃ


মনে করেন আপনার ফোনে ১মিনিট নেট ব্যবহার করলে ১মেগাবাইট কাটে! 
আমি এখন যেই সেটিংটি দেখাবো এটি চালু করার পর ১মিনিটে ০.২৫ মেগাবাইট কাটবে। 
মানেঃ আগের চেয়ে প্রায় ২গুণ কম কাটবে। 

তাহলে চলুন শুরু করা যাকঃ
সবারপ্রথম আমি প্রমাণ দেখিয়ে দেইঃ




[img id=3370]


সেটিংসটি অন করার আগে ও সেটিংসটি অন করার পরের মেগাবাইট কাটার স্ক্রিনশট। 


[img id=3362]


এখন সবার প্রথম আপনার ফোনের সেটিংস এ যানঃ


[img id=3363]


এরপর “More” লেখায় ক্লিক করুন। 


[img id=3364]


এবার “Data Usage” এ ক্লিক করুন। 


[img id=3365]


এবার দেখানো মেনুতে ক্লিক করুন। 


[img id=3366]


Restrict app background data লেখাটার উর ক্লিক করুন। 


[img id=3367]


এবার Ok তে ক্লিক করুন। 


[img id=3368]

সেটিংসটি অন হয়ে গেলে এরকম একটা নোটিফিকেশন আসবে। 
এখন থেকে আপনার মেগাবাইট অনেক কম কাটবে। 

[end]






Posted on Leave a comment

এখন খুব সহজেই MX Player এ ভিডিও hide করুন।

[h2]অাসসালামু অালাইকুম[/h2]
[u]হ্যালো বন্ধুরা, অাপনারা কেমন অাছেন অাশা করি ভালোই অাছেন।অার টুইসবিডির সঙ্গে থাকলে সবাই ভালোই থাকে[/u]
অার বন্ধুরা, অাজকে অাবার অারেকটি নতুন ট্রিক নিয়ে হাজির হলাম।
তো ট্রিকটি হলো কিভাবে অাপনি MX Player- এ ভিডিও hide করবেন?
অাপনাদের মধ্যে প্রায় সবাই MX Player চিনেন।অার কারো কারো কাছে এই অ্যাপসটি অবশ্যই থাকবে।তো কথা না বাড়িয়ে কাজে অাসি-
১।সর্বপ্রথম এখান থেকে অাপনাকে [url=https://play.google.com/store/apps/details?id=com.mxtech.videoplayer.ad]MX Player[/url] অ্যাপটি Download করে নিতে হবে।
২।তারপর অ্যাপটি open করে নিচের Screenshot অনুযায়ী কাজ করুন-
[img id=3300]

[img id=3301]

[img id=3302]

[img id=3303]

[img id=3304]

[img id=3305]

[img id=3306]

[img id=3307]

[img id=3308]

[img id=3309]
উপরের নিয়মগুলো অবলম্বন করলে, অাপনারা অবশ্যই সফল হবেন
অার যদি কোনো সমস্যা হয় তবে অবশ্যই কমেন্টে জানাবেন।
ফেসবুকে অামার সাথে যোগাযোগ করতে পারেন-
[url=https://free.facebook.com/prantik.sarder.92?ref_component=mfreebasic_home_header&ref_page=%2Fwap%2Fhome.php&refid=7]ফেসবুকে অামি[/url]
-খোদা হাফেজ

Posted on Leave a comment

কোনো রকম নেট কানেকশন ছাড়াই যেকোনো সাইট ব্যবহার করুন অফলাইনে!

আসসালামু আলাইকুম! 
কেমন আছেন সকলে? 
আশা করি অনেক ভালো আছেন? 
আমিও আল্লাহর রহমতে অনেক ভালো আছি। 

অনেক গুরুত্বপূর্ণ ওয়েবসাইট থাকে যেগুলো হঠাৎ অনেক সময় দরকার পড়তে পারে! 
আর তখন যদি আপনার মেগাবাইট না থাকে? 
তাহলে??? 
কিছু করার থাকবে না। 

তো আজকে আমি আপনাদের মাঝে ছোট্ট একটি এপস নিয়ে এসেছি। 

এপসটি দিয়ে অনেক সহজে যেকোনো ওয়েবসাইট অফলাইনে ব্যবহার করতে পারবেন। 

এখন আপনারা হয়তো বলতে পারবেন “পাগল নাকি?  কয় কি?  যেকোনো ওয়েবসাইট অফলাইনে কিভাবে ব্যবহার করব? “

আমি একটা উদাহরণ দেইঃ

আমরা অনেকেই ইউটিউবের ভিডিও দেখি।  যদি কোনো ভিডিও আমাদের ভালো লাগে তাহলে সেটা আমরা ডাউনলোড করে রাখি। 
যাতে পরবর্তীতে এটা অফলাইনে দেখতে পারি। 

আমরা ঠিক একই ভাবে আজ যেকোনো ওয়েবসাইট ডাউনলোড করে নিবো। 
এবং পরবর্তীতে অফলাইনে ওয়েবসাইটটি আমরা দেখতে পারবো। 

কাজটা করতে আমাদের ভয় পাওয়ার কিছু নাই। এই কাজটি করতে তেমন কিছুর দরকার ও নাই। আমরা আমাদের হাতের এন্ড্রয়েড ফোনটা দিয়েই আজকের এই কাজটা মানে যেকোনো সাইটটকে অফলাইনে দেখতে পারবো। 
এরজন্য আপনাকে একটি এপস ডাউনলোড করতে হবেঃ

নিচের লিংক থেকে এপসটি ডাউনলোড করে নিনঃ


এবার আসুন এপসটিতে কিভাবে কি করব? 
তা সবকিছু জেনে নেইঃ

[img id=3273]

এপসটি ডাউনলোড করে। 
ওপেন করুন। 

 [img id=3274]

এবার (+) প্লাস আইকোণে ক্লিক করুন। 

 [img id=3275]

এখন আপনি যেই সাইটটি অফলাইনে দেখতে চান! 
সেইটার লিংক ও টাইটেল লিখুন। 
এরপর “Download” এ ক্লিক করুন। 

 [img id=3276]

কিছুক্ষণ আপনার দেওয়া লিংকটি চ্যাক করবে। 

 [img id=3277]

এবার আপনার দেওয়া লিংকের  টাইটেল এর উপর ক্লিক করুন। 

 [img id=3278]

এবার সাইটটি ডাউনলোড করার জন্য “Yes” এ ক্লিক করুন। 

 [img id=3279]

দেখুন ওয়েবসাইটটি ডাউনলোড শুরু হয়ে গেছে। 
ডাউনলোড ১০০% হয়ে গেলে আবার আপনার দেওয়া লিংকের টাইটেল এর উপর ক্লিক করুন। 

 [img id=3280]

দেখুন আমার ডাটা অফ। 
এবার আমি আমার ডাউনলোডকৃত সাইটটা ওপেন করলাম। 

 [img id=3281]

আমি একটি পোস্ট ও দেখছি। 
কোনো প্রকার নেট কানেকশন ছাড়াই। 

 [img id=3282]

ওয়েবসাইটটিতে যদি কোনো অপশেন ডাউনলোড না হয়। 
তাহলে উপরের মতো দেখাবে। 
এবার ডাউনলোডে ক্লিক করে দিবেন। 
এই ফাইলটাও ডাউনলোড হয়ে যাবে। 



এটা শুধুমাত্র অনেক জরুরী সময়ে ব্যবহার করবেন। 
তাছাড়া অফলাইনে সাইটটা ব্যবহার করে আপনি শুধু পুরোনো আপডেট গুলোই পাবেন সাইটের৷ 
নতুন কোনো আপডেট আসলে অফলাইনে সেইটা আপনি দেখতে পারবেন না। 
Posted on 1 Comment

বিভিন্ন ভাষার কি-বোর্ড ব্যবহার করুন [Without any apps]

[h2]অাসসালামু অালাইকুম[/h2]
তো অাজকে অামি অারেকটা নতুন ট্রিক নিয়ে হাজির হলাম।অামাকে যদি অাপনারা অারও বেশি উৎসাহিত করেন।তাহলে অামি ভালো ভালো পোস্ট অাপনাদের জন্য লেখতে পারবো।
তে অাজকের বিষয় হলো কিভাবে কোনো প্রকার অ্যাপস ছাড়া যেকোনো ভাষার কি-বোর্ড ব্যবহার করবেন?
তো কথা না বাড়িয়ে চলুন কাজে অাসি।
তো এর জন্য অাপনাকে নিচের Screenshot অনুযায়ী কাজ করতে হবে-
[img id=3136]

[img id=3137]

[img id=3138]

[img id=3139]

[img id=3140]

[img id=3203]

[img id=]3204

[img id=3205]

[img id=3207]

কোনো প্রকার ভূল হলে ক্ষমা করবেন।
অার কোনো প্রকার সমস্যা হলে অবশ্যই কমেন্টে জানাবেন।
অার যদি পোস্টটি ভালো লাগে তাহলে একটা লাইক দিবেন।

ফেসবুকে অামার সাথে যোগাযোগ করতে পারেন-
[url=https://free.facebook.com/prantik.sarder.92?ref_component=mfreebasic_home_header&ref_page=%2Fwap%2Fhome.php&refid=7]ফেসবুকে অামি[/url]
-খোদা হাফেজ

Posted on 1 Comment

জাভা অথবা অ্যান্ড্রয়েডে যে কোনো ওয়েব পেজের ফুল পেজ স্কিনশর্ট করুণ কোনো ঝামেলা ছাড়াই

হেলো বন্ধুরা প্রথমেই আমার সালাম নেবেন, আসসালামু-আলাইকুম l
আশা করি সকলেই অনেক ভালো আছেন, আর এটাই আমার কামনা। তাছাড়া টুইচবিডি এর সাথে থাকলে সবাই নিশ্চয় ভালো থাকে l
তাই আমি আশা করব আপনিও ভালো আছেন, আর আমার কথা যদি বলতে যাই তাহলে বলবো ভালো আছি বলেই আজ লিখতে এসেছি l
তো বন্ধুরা চলুন এবার কাজের কথায় আসা যাক,
প্রথমে আপনাদের কাছে জানতে চাইব আপনি কি জানেন ফুল পেজ স্কিনশর্ট কি?
অনেকেই এটা জানেন, আর যদি না জানেন তাহলে আমি বলব আমরা সাধারণ ভাবে যে স্কিনশর্ট করি তাঁতে ফোন স্কিন এ যে টুকু অংশ থাকে সেটুকু স্কিনশর্ট হয় ,আর ফুল পেজ স্কিনশর্ট এর ক্ষেত্রে একটি সম্পূর্ণ ওয়েব পেজ স্কিনশর্ট করা হয় l
এখন প্রশ্ন হচ্ছে ফুল পেজ স্কিনশর্ট কেনো করবো ?
বেশীরভাগ ক্ষেত্রেই কোনো ব্লগ বা ওয়েব পেজ সরাসরি মেমোরিতে সেভ করে রাখার জন্য এটা করা হয় l
উদাহারণ স্বরূপ নাচিয়ে আমি একটা স্কিনশর্ট দিলাম যেটা আমি টুইচবিডি এর একটা টিউন থেকে করেছি,

এখন দেখুন কিভাবে এটা করবেন,
1. প্রথমেই এই লিঙ্কে চলে যানl
2. URL এর বক্সে যে পেজের স্কিনশর্ট নিতে চান সেটার লিঙ্ক কপি করে অথবা লিখে দিন l

[img id=3212]

3. Device Type এ কোন ধরনের ডিভাইসের শর্ট নিতে চান সেটা সিলেক্ট করে দিন l

[img id=3213]

4. Full Page Screenshot এ ক্লিক করে টিক দিন l

[img id=3214]

5. এবার নিচে গিয়ে Capture Screenshot এ ক্লিক করুণ l (কিছুক্ষণ লোড হবে)

[img id=3215]

6. লোড শেষ হলে পেজের উপরের দিকে যান l পেজের উপরের দিকে গিয়ে Download Screenshot এ ক্লিক করে ডাউনলোড করে নিন

[img id=3216]

আজকের মতো এখানেই শেষ আগামীতে আবার দেখা হবে ততক্ষণ সবাই ভালো থাকবেন সুস্থ থাকবেন এবং TwiceBD এর সাথেই থাকুন l
যে কোনো ধরনের জাভা অ্যাপ পেতে ভিজিট করুণ

sfappstore.wapkiz.com

Posted on 7 Comments

বিশ্বের যেকোনো ভাষার লেখাকে ছবি তূলে টেক্সট হিসাবে কপি করে নিন।

আজকে আর কিছু জানতে চাইবো না।
মানে কেমন আছেন আপনারা সকলে?  এটা।

আমার জানামতে আমার আজকের কন্টেন্টি টাইটেল দেখে যারা দেখতে আসবে তারা আমার মতোই লেখক।

কারণ এই পোস্টা আজকে তাদের জন্যই সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ।

আচ্ছা তাদের কথা বাদ দিলাম।  যারা কন্টেন্ট লিখে তাদেরও এটা অনেক কাজে আসবে।

মনে করেন,
-আপনি আপনি ৯ম শ্রেণির ছাত্র (আমিও😂) এখন আপনি আপনার তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বইটা পড়ছেন (এটা আমার প্রিয় বই)।  বইটা পড়তে পড়তে হঠাৎ অনেক শিক্ষনীয় একটি বিষয় দেখতে পেলেন।  দেখে আপনার ভালো লাগলো, আপনার ইচ্ছা হচ্ছে যে, আহা- যদি আমি এই বিষয়টি হুবুহু কপি করতে পারতাম তাহলে এটা টুইচবিডিতে লিখে দিতাম!

-এমনটা হতেই পারে অবাক হওয়ার কিছু নাই।
-শুধু বইয়েই নয়, নানা সংবাদপত্রেও নানান গুরুত্বপূর্ণ লেখা থাকতে পারে।
-আসলে আমি দেখেছি যে, এখনকার মানুষ নতুন কিছু জানতে পারলে অথবা দেখতে পেলেই নানান সাইটের মধ্যমে অন্যদেরকে সেইটা জানিয়ে দেই (আমিও😭)।

তো মনে করেন এমন কোনো কিছু সত্যিই পেলেন তখন কি করার?

– কিছুই করার নাই হয় লেখাটা দেখবেন আর টাইপ করবেন, না হয় মনটা খারাপ করে এটার আশা ছেড়ে দিবেন।

তবে এখন থেকে আর এরকম করতে হবে না।
—কেনো?

‘হূম, কারণ আমি আপনাদের জন্য আজকে এই কন্টেন্টে নিয়ে এলাম অসাধারণ একটি এপস (আমি তৈরী করি নি এপসটা😭)।

-যারা সাহায্য পৃথিবীর যেকোনো ভাষায় যেকোনো কাগজের লেখা বা যেখানেই লেখা হোক না কেনো সেইটা সরাসটি টেক্সট আকারে বের করে নিতে পারবেন।

–আর ইংরেজি লেখা হলে তো কোনো কথাই না,
কেনো?  কেনো?
-কারণ যেকোনো ইংরেজি লেখা এই এপসটা দিয়েই অফলাইনে টেক্সট আকারে বের করে নিতে পারবেন।

এই বিষয়টা অনেকেই হয়তো জানে,
তবে যারা জানেন না।
এটা তাদের জন্য।

[h2]কিছু লেকচারঃ[/h2]
-আসলে আমি দেখেছি যে, টেকটিউনস আর ট্রিকবিডি দুইটার মধ্যে বেশি পার্থক্য নেই।
তবে টেকটিউনসে কোনো কন্টেন্ট কেউ যদি ভালো লেখে তাহলে সবাই তাকে সুন্দর মন্তব্য করে উৎসাহ দেই।
আর কোনো যায়গায় ভূল হলে সেইটা সুন্দরভাবে ধরিয়ে দেই।

ট্রিকবিডিও টেকটিউনসের থেকে কোন দিক থেকেই পিছিয়ে নেই।
ট্রিকবিডিতে কোনো লেখক যদি কোনো কন্টেন্টে কোথাও ছোট্ট একটি ভূল করে তাহলে অন্য ইউসাররা এটা ধরিয়ে দেই,  তবে, তাদের ভূলটা ধরিয়ে দেওয়ার কৌশলটা খুবই সুন্দর।
কি রকম???
আসলে তারা নানান ধরণের খারাপ ভাষা অবলম্বন করে।

এ কারণে যে কন্টেন্টটা লিখে সে খুবই লজ্জিত বোধ করে।

এমনকি ছোট্ট একটু কমেন্টের জন্য সে দেখা যাচ্ছে যে, কন্টেন্ট লেখায় বন্ধ করে দিচ্ছে- কে জানে?

-আর কোনো লেখক যদি ভালো কোনো কন্টেন্ট লিখে সেটাই যদি কোনো ভূল নাও থাকে।  তাহলে অন্য ইউসাররা সেটা পড়ে বিষয়টা জেনে সোজা কেটে পড়বে। (এটাই সত্যি)

-তবে তার লেখাটা ভালো হয়েছে এই যেনে যে, তাকে একটু উৎসাহ দিবে সেইটা না।

-আমি তাদেরকে কিছু বলব না যারা এই ধরণের সুন্দর😂 চরিত্রের লোক।
-কারণ তারা আমার কথায় সোজা হওয়ার লোক না।

তাই তাদেরকে বলব যারা আমার মতো লেখক “ভাইয়ারা আপনারা লিখে যান এদের কথায় কান না দিয়ে আপনার লক্ষ্যে এগিয়ে যান”

এই টুকু বলার ছিলো।
একটু বিষয় বলে ফেললাম আসলে আমি একটু বেশিই ইমোশোনাল।

তাহলে আসুন কনেন্টি শুরু করেঃ

[h2]Now Let’s start[/h2]

সবার প্রথম নিচে দেওয়া লিংক থেকে আজকের এই এপসটি ডাউনলোড করে নিন।



[img id=2939]


এপসটি ডাউনলোড হয়ে গেলে- এপসটিতে প্রবেশ করুন।


[img id=2940]


এবার “Enter” লেখায় ক্লিক করুন।


[img id=2941]


আচ্ছা একটা কথা বলে নেইঃ
এই এপসটা ব্যবহার করে আপনি সারাবিশ্বের যেকোনো ভাষার লেখাকে কপি করতে পারবেন।
তবে এরজন্য আপনার অবশ্যয় নেট কানেকশনের প্রয়োজন হবে।

তবে, হ্যা ইংরেজি লেখাটা কিন্ত অফলাইনেই কপি করতে পারবেন।

তো এখন আগে বাংলা লেখা কপি করা দেখায় তাই আপনার ফোনের ডাটা কানেকশনটা অন করে নিন।


[img id=2942]


এবার উপরের দিকের ক্যামেরা আইকোণে ক্লিক করুন।


[img id=2943]


এখন আপনি যেই লেখাটাকে কপি করতে চান সেইটার একটা ছবি আপনাকে দিতে হবে।
তো,
এখন ছবিটা যদি ক্যামেরা দিয়ে তূলে দেন তাহলে “Camera” আর যদি গ্যালারীতে ছবিটা থাকে তাহলে “Gallery” চোয়েচ করুন।

তো আমি “Camera” থেকে নিবো।


[img id=2944]


তো আমি আমার বইয়ের একটা পেজের কিছুটার ছবি তূলে নিলাম যেটুকু কপি করতে চায়।


[img id=2945]


এবার ছবিটা ঠিক তূলে থাকলে দেখানো জায়গায় ক্লিক করুন।


[img id=2946]


এবার আপনি যেটুকু লেখা কপি করতে চান সেটুকু কাট করুন।


[img id=2947]


কিছুক্ষণ অপেক্ষা করুন।


[img id=2948]


দেখুন আমার বইয়ের লেখাটা টেক্সট আকারে চলে এসেছে।
তো এখন লেখাটা কপি করে নিন।


[img id=2948]


এবার আসুন দেখি কিভাবে অফলাইনে ইংরেজি লেখা কপি করব?

তো এরজন্য দেখানো মেনুতে ক্লিক করুন।


[img id=2950]



এবার “Ofline Scan” এ ক্লিক করুন।


[img id=2955]


এবার আগের মতোই ক্যামেরা আইকোণে ক্লিক করুন।


[img id=2951]


এবার আমি গ্যালারী থেকে একটা স্ক্রিনশট নিবো।


[img id=2952]


এবার যেই স্ক্রিনশটটির লেখা কপি করতে চান সেইটা সিলেক্ট করুন।


[img id=2953]


আগের মতোই ক্রপ করে নিন।


[img id=2954]


ও ও এবার আর কোনো অপেক্ষা করতে হবে না।
সাথে সাথে চলে আসবে।
এবার দেখানো জায়গায় ক্লিক করে কপি করে নিন।

তাহলে কি এখানেই শেষ করতে হচ্ছে আজকের লেখাটা।
আশাকরি আপনাদের ভাল লাগছে না।
যদি খারাপ লাগে তাহলে একটা কমেন্ট করবেন আর ভালো লাগলে এখান থেকে কেটে পড়বেন।
আমার কথা না (আপনাদের স্বভাব)।