Posted on 1 Comment

Translate করুন যে কোনো কিছু,,অফলাইন এ ও…Best Dictionary…{না দেখলে মিস}(যারা জানেন না তাদের জন্য)

[h1]আসসালামু আলাইকুম[/h1]
[br]
কেমন আছেন আপনারা??
[br]
অবশ্য যারা TwiceBD এর সাথে থাকে তারা ভালো থাকে,,
[br]
তো চলুন বেশি কথা না বলে কাজের কথায় আসি…
[br]
টাইটেল দেখে নিশ্চই বুঝেছেন আজকের পোষ্টটি কোন বিষয়ের উপর হতে যাচ্ছে,,
[br]
আজ কথা বলবো \”Google Translate\” নিয়ে,,
[br]
এপস টি অত্যন্ত ভালো,,
আর আপনারা তো জানেন ই যে Google এর তৈরী যে কোনো কিছুই ভালো মানের হয়…
[br]
প্রথমে Play Store থেকে \”Google Translate\” লিখে Search করে Apps টি Download করে নিন..
[img id=3069]
তারপর Apps টি Open করুন…
[img id=3070]
Data Connection দিয়ে,, I mean অনলাইন এ আপনি এই এপস টি দ্বারা প্রায় ১০৫ টির মতো ভাষা Translate করতে পারবেন…
[img id=3073]
অফলাইন এ প্রায় ৬০ টির মতো ভাষা Translate করতে পারবেন…
[img id=3072]
[br]
[img id=3071]
আপনি এটিকে Dictionary হিসেবে ব্যবহার করতে পারবেন…
আর সেক্ষেত্রে এটি হবে সর্বাধিক উত্তম Dictionary….
[br]
Camera অপশন থেকে আপনি চাইলে যে কোনো লেখা Translate করতে পারবেন…
[br]
Online এ Camera অপশন থেকে আপনি একটি ছবি তুলে সেটিকে scan & মার্ক করে Translate করতে পারবেন….
[img id=3077]
আপনি চাইলে Notification Bar এ রেখে দিতে পারেন apps টিকে…from Go on settings….
[br]
আপনি Bangla → English,,
English → Bangla,,
Bangla → Hindi,,
Hindi → Bangla,,
English→ Hindi,,
ইত্যাদি ভাবে Translate করতে পারবেন…
[br]
আপনি Data Connection অন রেখে \”Conversation\”,,,\”Voice\”
ইত্যাদি ভাবে ও Translate করতে পারবেন…
আর এক্ষেত্রে আপনি যা বলবেন তা voice system এ convert করে শোনানো হবে….
[br]
আপনি যদি কোনো সাইট ব্রাউজ করার সময় যদি কোনো কিছু কপি করেন তবে সঙ্গে সঙ্গে এই এপস দ্বারা Translate করার option দেখাবে…
[br]
তাছাড়া যে কোনো সময় কোনো কিছু কপি করলেও Translate অপশন দেখাবে…
[br]
Apps টি Play Store থেকে 500 মিলিয়ন + Download হয়েছে…
[br]
নিত্য প্রয়োজনীয় অনেক কাজেই আমাদের কোনো কিছু Translate করতে হয়..
[br]
তাই এটি হতে পারে প্রয়োজনের সাথী…
[br]
আরো অনেক Feature আছে…
চাইলে Download করে নিতে পারেন…
[br]
ভালো থাকবেন
সুস্হ থাকবেন
খোদা হাফেজ

Posted on 2 Comments

Android এর জন্য সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ Keyboard(ব্যবহার করেই দেখুন)

আসসালামু আলাইকুম
[br]
কেমন আছেন?
[br]
নিশ্চই ভালো আছেন!
TwiceBD এর সাথে থাকলে ভালো থাকারই কথা
[br]
আজ আপনাদের সাথে একটি keyboard নিয়ে আলোচনা করবো.
[br]
Name : ZenUi keyboard
[br]
আসুস ইউজাররা জানে এই কি – বোর্ড এর ফিচার.
[br]
কি – বোর্ড টি পুরাই কম্পিউটারের মতো কাজ করবে
[br]
বিশেষ যা যা ফিচার পাবেন এই কি – বোর্ড এ →
1. Text edit
2. Clipboard
3. Theme change
4. Hide keyboard
[br]
Text edit দ্বারা কম্পিউটারের মতো লেখা ইডিট করতে পারবেন.
হাত দিয়ে লেখার উপর ক্লিক করে করে এদিক ওদিক
নিয়ে যাওয়া,,কপি করার দিন শেষ
Arrow button এর সাহায্যে কাজ করুন
[br]
Clipboard এর সাহায্যে copy করা 50 টি আইটেম দেখতে পাবেন….
[br]
Theme change করতে পারবেন
নিজের ছবি লাগাতে পারবেন..
[br]
Hide koyboard button এর দ্বারা back button এ ক্লিক না করেই keyboard hide করতে পারবেন…
[br]
কিছু screenshot
[img id=2990]
[img id=2991]
[img id=2992]
[img id=2993]
[img id=2995]
[img id=2996]
[img id=2997]
[br]
বেশি কথা বলবো না,,
আপনারা ব্যবহার করলেই বুঝতে পারবেন
[br]
Download link : [url= https://m.apkpure.com/asus-keyboard-%E2%80%93-emoji-theme/com.asus.ime/download]Download[/url]
[br]
Link থেকে download করতে না পারলে Google এ \”Asus ZenUi Keyboard\” লিখে সার্চ করলেই \”Apk pure\” সাইট থেকে Download করতে পারবেন…
[br]
ভালো থাকুন,,
আসসালামু আলাইকুম..
[br]
ভুল-ত্রুটি ক্ষমাসুন্দর দৃষ্টিতে দেখবেন…

Posted on Leave a comment

সম্পূর্ণ ফ্রীতে নিয়ে নিন ২০০০৳ টাকার Video Show Pro Mod Unlocked ভার্শন।

বর্তমানে বেশিরভাগ মানুষই মোবাইল ব্যবহার করে থাকে।

তবে মোবাইলে কিন্তু ভিডিও এডিটিং টা বেশ ভালো হয়না।

এজন্য প্রয়োজন হয় কম্পিউটারের আর নানান ধরনের অ্যাপসের।

আমাদের সকলের কিন্তু কম্পিউটার নাই।

তাই আমরা অনেকেই আছি যারা মোবাইল ব্যবহার করে ভিডিও এডিটিং করে থাকি।

ভিডিও এডিটিং খুবই গুরুত্বপূর্ণ একটি বিষয়।

অনেকেই আছে যারা ইউটিউবে কাজ করে থাকি আবার অনেকে ও কাজ করার চিন্তা ভাবনা করছে।

এসকল প্রত্যেকটা মানুষের জন্য আজকে আমি নিয়ে এসেছি অসাধারণ একটি অ্যাপস।

এসটি মোবাইল ব্যবহারকারীদের জন্য।

পৃথিবীর কমবেশি প্রত্যেকটি মানুষের সঙ্গে পরিচিত এই এপসটি।

Apps Name : Video Show

এখন আপনারা বলতে পারেন যে তাহলে এটা আবার নিয়ে আসার কি হল এটাতো প্লে স্টোরে পাওয়া যায়।

হুম প্লে স্টোরে পাওয়া যায়।

আপনারা প্লে স্টোর থেকে যেটা ডাউনলোড করবেন ওটা ফ্রী ভার্শন

ফ্রী ভার্শনে আপনি সকল ধরনের সুবিধা পাবেন না।

তবে আজকে আমি যে আসছি নিয়ে এসেছি এটা ভিডিও শো পেইড ভার্শন।

প্লে স্টোরে যার মূল্যঃ [bg=red]24$[/bg]
অতএবঃ ১৯২০ টাকা।

আজ আমি এই এতো দামি এপসটি আপনাদেরকে ফ্রীতে দিয়ে দিবো।

তাহলে চলুন সবার প্রথম জেনে নেই ভিডিও শো প্রো এপসটির কিছু ফিউচারঃ

[h2]Video Show Pro Features[/h2]

– No watermark!
– No ads!
– Support exporting 1080p video
– Support 4k video
– Plentiful exclusive& unique materials to use
– Up to 20 FX Effects in one video

আশা করি সবগুলো নতুন ফিউচার গুলো জানার পর আপনাদের অবশ্যয় এপসটি ভালো লাগবে।

আর সবচেয়ে ভালো একটি বিষয় হলোঃ ভিডিও শো বর্তমানে সবচেয়ে বড় ভিডিও ইডিটিং এপস।

তাছাড়া সরাসরি এপসটির New Updates স্ক্রিনশট দেখে নিন।

[img id=2746]

আর যারা এপসটি সম্পর্কে কম জানেন তারা এপসের About টা দেখে নিন।

[img id=2747]

এবার আসুন আসুন এপসটির ছোট্ট একটু Details জেনে নেইঃ

[h2]Apps Details[/h2]
Name : Video Show Pro Unlocked Version.
Supported : Android V4.2.3+
Size : 23MB

দেখা দেখির সব কিছুর সময় শেষ।
এখন আমরা এপসটি ডাউনলোড করব।

আসলে এপসটি আমি যখন কিনি তখন যে আমি কতোটা উত্তেজিত ছিলাম তা আপনাদের বোঝাতে পারবো না।

যায় হোক আর সেই একই এপস আপনাদেরকে আমরা ফ্রীতে দিয়ে দিবো।

আপনাদের হয়তো ভালো লাগছে?

[h2]Apps Download[/h2]
[url=http://helpbd.wapo.mobi/edit-4.html?to-fid=106&to-name=VideoShow%20Video%20Editor%20Unlocked%20v8.5.6rc%20www.Rexdl.com]Download[/url]

[h2]কিছু কথা[/h2]

[h3]কিছু মানুষ আছে পোস্টে শুধু মানুষের খারাপ দিক গুলো খুজে বেড়ায়।
কোথায় কোনটা ভূল আছে সেইটা দেখেই তারা খারাপ কমেন্ট করে।
ইচ্ছা করে এগুলোকে ধরে লাঠি মেরে সাইট থেকে বেড় করে দিতে।
আর পোস্টা যদি ভালো হয় তাহলে তারা পোস্টে ভালো কোনো জিনিস থাকলে নিয়ে ১০০হাত দূরে চলে যায়।
তাই আমার রিকুয়েস্ট এই সব বেইমান লোকগুলো আমার ১০০হাত দূরে থাকেন। [/h3]

[end]

Posted on 2 Comments

অসুস্হ হলে যেকোন রোগের ওষুধ নাম ও এর দাম সহ বিস্তারিত জানুন।

আমরা প্রায়ই নানা রোগে আক্রান্ত হই। কিন্তু রোগ হলে তো ওষুধ খেতে হবে। কিন্তু সবসময় তো আর ডাক্তারের কাছে যাওয়া সম্ভব হয় না। রাতের বেলা কিংবা ছুটির দিনে ডাক্তার পাওয়া অসম্ভব হয়ে যায়। কিন্তু ছোটখাটো রোগের ক্ষেত্রে শুধু ওষুধ খেলেই চলে। কিন্তু আমি বা আপনি তো আর ডাক্তার না। সমস্যা যেহেতু আপনার তাই চুপ করে বসে থাকলে তো আর হবে না। আপনার সমাধান আপনাকেই করতে হবে। যাকগে সেসব কথা, এখন থেকে আপনি খুব সহজে মোবাইলে একটি এপের মাধ্যমে সমস্যা সমাধান করতে পারবেন। ঘরে বসে শুধুমাত্র এপটি থেকে তথ্য পাবেন।তো শুরু করা যাক, প্রথমে আপনি এখানে প্লেস্টোর লিংক থেকে এপটি [url=https://play.google.com/store/apps/details?id=com.twgbd.dims&hl=bn&referrer=utm_source%3Dgoogle%26utm_medium%3Dorganic%26utm_term%3Ddims+playstore]ডাউনলোড[/url] করে নিন। এপটি install করে ঢুকলে দেখতে পাবেন অনেকগুলো অপশন।এখানে আপনি Drug by অপশনে ক্লিক করুন।
[img id=2164]

এবার আপনি আপনার কি রোগ হয়েছে তা সিলেক্ট করুন। ধরুন আপনার জ্বর হয়েছে তাই Fever সিলেক্ট করুন।
[img id=2165]

এবার Paracetamol সিলেক্ট করে নিন।
[img id=2166]

এবার Brand সিলেক্ট করুন। যেকোন একটি ব্রান্ড যেমন ACE ওষুধ সিলেক্ট করুন।
[img id=2167]

এখানে এটির প্যাক সাইজ ৫০০ টি এবং ওষুধের দাম প্রতি পিস ০.৮০ টাকা এরকম জানতে পারবেন।
[img id=2168]

এপটির প্লেস্টোর রেটিং 4.8 পেয়েছে এবং
এপটি চালাতে কোন ইন্টারনেট সংযোগ লাগে না। তাই কোন প্রকার ডাটা খরচ হবে না। আপনি খুব সহজে অ্যাপটি চালাতে পারবেন। এপটির ইউজার ইন্টারফেস অনেক সোজা এবং দ্রুত তার সাথে কাজ করা যায়।
দিনদিন এপসটির ইউজার সংখ্যা বেড়েই চলছে।এপটি অনেক ফাস্ট।এপটি বাংলাদেশে খুবই জনপ্রিয়। আপনিও এপটি ব্যবহার করতে পারবেন। রোগের ওষধ নির্নয়ে এপটির জুড়ি নেই। অনেক ফার্মেসী দোকানদার এই এপটি ব্যবহার করে থাকে। কারন এপটি দিয়ে যেকোন ওষধ কোন গ্রুপের এবং কি কাজ তা জানা যায়। এজন্য প্রথমে এপে ঢুকে search অপশনে গিয়ে ওষুধ নাম লিখুন।
[img id=2169]

ব্যাস পেয়ে গেলেন ওষুধের নাম ও দাম সহ বিস্তারিত তথ্য। এখানে আপনি সহজে এক একটি অপশন ট্রাই করতে পারেন। আশা করছি আপনি নিরাশ হবেন না।

সবাইকে অসংখ্য ধন্যবাদ পোস্টটি পড়ার জন্য। আমার পোস্টটি পরে যদি কেউ উপকৃত হয় তাহলে খুব খুশি হবো। সবাইকে সাধুবাদ জানাই।

Posted on 3 Comments

Pixellap app ব্যবহার A to Z

[h1][PixelLap apps ব্যবহার A to Z[/h1]


[color=red]আজকে আমি আপনাদের কে শেখাবো কিভাবে আপনারা পেজের জন্য পোস্ট তৈরি করবেন।[/color]


আসসালামু আলাইকুম,


আজকে আমার এই সাইটে প্রথম পোস্ট। ভুল হলে ক্ষমা দৃষ্টিতে দেখবেন।


আমরা অনেকে pixelLap apps ব্যবহার করে থাকি,তবে সেটা সঠিক ভাবে কাজে লাগাতে পারি না।


তো তাদের জন্যই আজকের এই পোস্ট।বেশি কথা বলবো না।


যারা ফেসবুকে পেইজ চালান তাদের জন্য খুবই গুরুত্বপূর্ণ এটি,চাইলে শিখে নিবেন।

প্রথমে গুগুল প্লে স্টোর থেকে একটি Apps নামিয়ে নিন


Pixellap [url=https://play.google.com/store/apps/details?id=com.imaginstudio.imagetools.pixellab]এখানে ক্লিক করুন[/url]


ডাউনলোড করা শেষ হলে ওপেন করুন।
[img id=1907]
এই রকম একটি ইন্টারফেস দেখতে পাবেন।
[img id=1919]
এখন এই খান থেকে ব্যাকগ্রাউন্ড ছবি সিলেক্ট করে নিবেন।
[img id=1908]
new text এর উপর ক্লিক করে আপনার পোস্ট টি লিখুন।
[img id=1910]
লিখা শেষ হলে উপরে থেকে ওকে করে দিন।
[img id=1911]
এই খান থেকে লেখার সাইজ ছোট বড় করে নিতে পারেন আপনার ইচ্ছা মতো।
[img id=1912]
এই খান থেকে লেখার কালার পরিবর্তন করে নিতে পারবেন।
[img id=1913]
এই খান থেকে font সিলেক্ট করে নিবেন।
font Add করা না বুঝলে পরবর্তী পোস্টের জন্য অপেক্ষায় করুন।
[img id=1914]
[img id=1920]
এই খানে থেকে Stroke & Shadow সিলেক্ট করে নিবেন আপনার প্রয়োজন মতো।
[img id=1915]
উপরে Image save দেওয়া আইকনে ক্লিক করুন।
[img id=1916]
Save to gallery ক্লিক করুন।
[img id=1917]
আজকে এই পর্যন্তই,পরবর্তীতে এই পোস্টের বিস্তারিত নিয়ে আসবো।


সেই পর্যন্ত   Twicebd.com এর             সাথেই থাকুন।


আমার একটি পেইজ আছে,পেইজে প্রবেশ করে আমার এডিট গুলো দেখতে পারেন।


[url=https://www.facebook.com/pg/Thewriter222/about]এখানে[/url]

Posted on Leave a comment

গ্রামারের সহজ-কঠিন সকল নিয়ম নিজের আয়ত্তে নিয়ে আসুন মাত্র একটি মাত্র অ্যাপ ব্যবহারের মাধ্যমে!

হ্যালো ভিউয়ার্স আসসালামু আলাইকুম। 

আশা করি আপনারা সবাই আল্লাহ তায়ালার অশেষ রহমতে ভাল আছেন। আমিও আপনাদের দোয়ায় ভাল আছি। কিছু সমস্যার কারণে প্রায় অনেক দিনই ওয়েবসাইটে পোস্ট করা হয় নাই। তো আজকে আমি আবারো আপনাদের কাছে ফিরে এলাম আরো এক সুন্দর এবং চমৎকার একটি অ্যাপস নিয়ে। যার মাধ্যমে আপনি গ্রামাটিক্যাল এর সকল খুটিনাটি বিষয় যেমন পাবেন তেমনি সেই নিয়ম গুলো শিখে চর্চা করে অল্পদিনের মধ্যেই ইংরেজিতে দক্ষ হয়ে উঠতে পারবেন। 
তো চলুন কথা না বাড়িয়ে শুরু করা যাক।

ইংরেজি!!! আমাদের দেশের অধিকাংশ মানুষ ইংরেজি কে এক ধরনের আতঙ্কের নাম হিসেবে মনে করে। ইংরেজি নামটাই যেন আতঙ্ক। মূলত ইংরেজিতে এরকম ভয় ভীতির সৃষ্টি হয় গ্রামাটিক্যাল দুর্বলতা থাকলে  গ্রামাটিক্যাল কে ইংরেজি বলা হয়ে থাকে। আপনি ইংরেজি তখনই অনর্গল বলতে পারবেন এবং লিখতে পারবেন যখন আপনি গ্রামাটিক্যাল কে সুন্দর ভাবে নিজের আয়ত্তে আনতে পারবেন।

আজকে আমি আপনাদের মাঝে যে অ্যাপটি সম্পর্কে আলোচনা করব সেটিতে একেবারে বাচ্চাদের বেসিক থেকে শুরু করে প্রফেশনালদের এডভান্স পর্যন্ত সকল ধরনের গ্রামাটিক্যাল নিয়ম পাবেন শুধুমাত্র এই একটি অ্যাপ এর মধ্যে।

আর সবচাইতে মজার এবং আশ্চর্যজনক বিষয় হচ্ছে এই অ্যাপটিতে আপনারা উদাহরণসহ বুঝতে পারবেন ।ক্লিয়ার করে বলতে গেলে একটা নিয়ম শেষে আপনাদের আরো ভালভাবে বোঝার জন্য নিচে সুন্দর করে কিছু উদাহরণ দেওয়া থাকবে এই অ্যাপে।

আপনাদের জন্য আমি অ্যাপটির কিছু স্ক্রিনশট দিয়ে দিচ্ছি চাইলে এই স্ক্রিনশট গুলো দেখতে পারেন বা সরাসরি অ্যাপটির গুগল প্লে স্টোর থেকে ডাউনলোড করেও দেখতে পারেন।
[img id=1366]
[img id=1368]
[img id=1367]
[img id=1370]

অ্যাপটির নাম হচ্ছে: All English Grammer Rules

ডাউনলোড করতে পাশে ক্লিক করুন: [url=https://play.google.com/store/apps/details?id=com.rsnapp.english_grammar_learning_app_in_bangla]Click The Link[/url]

আশা করছি টিউটোরিয়ালটি ভালো লেগেছে এটি একটি শিক্ষনীয় টিউটোরিয়াল ছিল বা অ্যাপ রিভিউ বলতে পারেন যার মাধ্যমে যেকেউ ঘরে বসে টাকা খরচ করে দামি দামি বই না কিনে একটি মাত্র অ্যাপ ব্যবহার করে ইংরেজি গ্রামাটিক্যাল দক্ষ হয়ে উঠতে পারবেন আজকের টিউটোরিয়ালটি এই পর্যন্তই ইনশাল্লাহ আবার দেখা হচ্ছে পরবর্তী টিউটোরিয়ালে ততক্ষণ পর্যন্ত ভাল থাকুন সুস্থ থাকুন খোদা হাফেজ।
Posted on 5 Comments

গাছপালা বা যাই থাকুক না কেন যেকোনো ব্যাকগ্রাউন্ড রিমুভ করুন মাত্র ১ ক্লিকে!

হ্যালো ভিউয়ার্স! আসসালামু আলাইকুম। আশা করি আপনারা সবাই আল্লাহ তায়ালার অশেষ রহমতে ভাল আছেন। আমিও আপনাদের দোয়ায় ভালো আছি।
আজকের এই টিউটোরিয়ালে আমি আপনাদের দেখাবো কিভাবে আপনারা যেকোনো টাইপের ব্যাকগ্রাউন্ড ইমেজ রিমুভ করবেন এক ক্লিকে।

আপনাদের পুরো টিউটোরিয়াল জুড়ে সাথে আছে আমি মেহেদী হাসান। চলুন শুরু করা যাক।

আমরা অনেকেই আছি যারা একটু সময় পেলেই কমবেশি ফটো এডিটিং করতে ভালোবাসি। তাছাড়া এই ব্যাকগ্রাউন্ড ইমেজ বা ব্যাকগ্রাউন্ড ফটো এডিট করা বা কেটে ফেলা অনেক সময় আমাদের জন্য খুবই গুরুত্বপূর্ণ হয়ে পড়ে। নিজের ছবিকে অন্য কোথাও বসানো হোক বা অন্য যেকোনো গুরুত্বপূর্ণ কাজে ব্যাকগ্রাউন্ড ইমেজ ডিলিট করে নিজের ছবি রাখার প্রয়োজন পড়ে।

অনলাইনে এমন হাজার হাজার অ্যাপস আছে যেগুলোর মাধ্যমে আপনি ব্যাকগ্রাউন্ড ইমেজ বা ফটো ডিলিট করে দিয়ে নিজের ছবি রাখতে পারবেন। তবে তার জন্য হাতের আংগুল দিয়ে লাইন কেটে ব্যাকগ্রাউন্ড ইমেজ থেকে আপনার কাঙ্খিত ইমেজ কে সরিয়ে ফেলতে হবে। এই প্রক্রিয়াটি অত্যন্ত সময়সাপেক্ষ এবং নিখুঁতভাবে করতে গেলে অনেক সময় এক ঘন্টা সময়ও লেগে যায়।

আবার হয়তো এক ক্লিকে ব্যাকগ্রাউন্ড ডিলিট করারও কিছু অ্যাপস গুগোল প্লেস্টরে আছে তবে সেই অ্যাপস গুলো তখনই কাজ করবে যখন আপনার ছবির ব্যাকগ্রাউন্ড যেকোনো এক কালারের হবে। যেমন সাদা, নীল বা অন্য যে কোন এক কালারের ব্যাকগ্রাউন্ড হলে ওই অ্যাপস দিয়ে এক ক্লিকে ব্যাকগ্রাউন্ড ডিলিট করতে পারবেন।

তবে আজকে আমি আপনাদের সাথে যে অ্যাপসটি শেয়ার করব এটার মাধ্যমে আপনার ইমেজের ব্যাকগ্রাউন্ড যাই থাকুক না কেন আপনি সেটা এক ক্লিকের মাধ্যমে রিমুভ করে দিতে পারবেন।
ধরুন উদাহরণ হিসেবে বলতে গেলে আপনার ছবির ব্যাকগ্রাউন্ড এ যদি কোনো রকম গাছপালা বা অন্য যেকোন অবজেক্ট বা বস্তু থাকে তাহলে আপনি সেগুলো এক ক্লিকের মাধ্যমে ডিলিট করতে পারবেন যা অন্যান্য অ্যাপস দ্বারা করা কখনোই সম্ভব নয়।
সো যারা এই ঝামেলার প্রক্রিয়াটিকে বাদ দিতে চান শুধুমাত্র তাদের জন্য আজকের আমার এই টিউটোরিয়ালটি। যেখানে আপনি একটি মাত্র ক্লিক করার মাধ্যমে নিজের ব্যাকগ্রাউন্ড ইমেজ ডিলিট করে দিতে পারবেন

সর্বপ্রথম আপনাকে একটি অ্যাপ ডাউনলোড করতে হবে গুগল প্লে স্টোর থেকে। অ্যাপটির লিংক নিচে দেওয়া হলো। এখান থেকে আপনি সরাসরি ডাউনলোড করে নিতে পারবেন।

App Link:[url=https://play.google.com/store/apps/details?id=com.versa]Makaron – Click Here To Download[/url]

নোট: যে কথা না বললেই নয় এই অ্যাপটি ব্যবহার করে আপনার ব্যাকগ্রাউন্ড ইমেজ রিমুভ করার জন্য কিন্তু অবশ্যই আপনার ফোনে ইন্টারনেট কানেকশন থাকতে হবে। ইন্টারনেট কানেকশন ছাড়াই এই অ্যাপটি কাজ করবে না। তবে জেনে রাখা ভালো ইন্টারনেট লাগবে বলে আবার ভেবেন না ব্যাকগ্রাউন্ড ইমেজ রিমুভ করতে 100 থেকে 200 এমবি চলে যাবে। এটা যদি কেউ ভেবে থাকেন তাহলে সম্পূর্ণ ভুল। কেননা ডাটা কানেকশন অন করে ব্যাকগ্রাউন্ড ইমেজ রিমুভ করতে নিলে সর্বোচ্চ আপনার সিম থেকে ৫ থেকে ৬এমবির মতো খরচ হবে।

[img id=573]
১। সর্বপ্রথম অ্যাপটি ইনস্টল করার পর আপনাকে অ্যাপ এর ভিতরে প্রবেশ করতে হবে অ্যাপ এর ভিতরে প্রবেশ করার পর কিছু পারমিশন চাবে সেগুলো আগে দিয়ে নিবেন।

[img id=572]
২। তারপর এই অপশন থেকে আপনার নির্দিষ্ট ছবিটি সিলেক্ট করে নিবেন যেটার ব্যাকগ্রাউন্ড ইমেজ আপনি রিমুভ বা ডিলিট করতে চাচ্ছেন। তাছাড়া আপনি সরাসরি ক্যামেরার মাধ্যমে ছবি তুলে ও সেটার ব্যাকগ্রাউন্ড ইমেজ ডিলিট করতে পারবেন। এই দুই রকম অপশন এ অ্যাপ এর ভিতর দেওয়া থাকবে আপনার যেটা সুবিধা মনে হয় আপনি সেটা সিলেক্ট করে দিয়ে কাজ করতে পারবেন।

[img id=571]
৩। নির্দিষ্ট ছবি টি সিলেক্ট করার পর কিছু সময় নিবে ছবিটি উপস্থাপন হওয়ার জন্য তারপর উপরের ছবির মত সেম ইন্টারফেজ দেখা যাবে। এখন আপনাকে যা করতে হবে সেটা হচ্ছে আপনি যে অংশটি রিমুভ করতে চাচ্ছেন সেই অংশটিতে একবার ক্লিক করবেন। ক্লিক করার পরে নিচের ছবিতে তীর চিহ্ন দ্বারা দেখানো অংশে সাথে সাথে ক্লিক করবেন এর ফলে সহজেই আপনার কাঙ্খিত ইমেজের অংশটি থেকে ব্যাকগ্রাউন্ড রিমুভ হয়ে যাবে।
[img id=570]

—————0—————
[img id=569]
৪। ব্যাকগ্রাউন্ড রিমুভ করা হয়ে গেলে নিচের ডান পাশে তীর চিহ্ন দ্বারা দেখানো টিক চিহ্নে ক্লিক করে দিবেন।

[img id=568]
৫। টিক চিহ্নে ক্লিক করার পর Save As Photo নামে একটা অপশন পাবেন সেটাতে ক্লিক করলে আপনার কাঙ্খিত ছবিটি ফোন মেমোরিতে যুক্ত হয়ে যাবে।
তো এটাই ছিল আজকে আমার টিউটোরিয়াল। এই ওয়েবসাইটে আমি প্রথম আমার এই টিউটোরিয়ালটি করলাম। আশা করি সবার এই টিউটোরিয়ালটি ভালো লেগেছে। যেহেতু প্রথমবার লিখেছি তাই হয়তো ভুল ত্রুটি থাকতে পারে সেটা ক্ষমার দৃষ্টিতে দেখার অনুরোধ করছি।

যদি টিউটোরিয়ালটি ভালো লাগে এবং এটা হতে সামান্যতম উপকৃত হয়ে থাকেন তাহলে অবশ্যই পোস্টে একটা লাইক এবং কমেন্ট করবেন ।কারন আপনার একটা লাইক এবং কমেন্ট আমাকে অনুপ্রেরণা যোগাবে আমার পরবর্তী পোস্টের জন্য।

ধন্যবাদ আপনার মূল্যবান সময় অপচয় করে পোস্টটি পড়ার জন্য।
Posted on 3 Comments

কোনো রকম এডসের ঝামেলা ছাড়া নতুন ভার্সনের Shareit Lite ব্যবহার করুন আরো কম এমবিতে!

হে ভিউয়ার্স! কেমন আছেন সবাই? আশা করি আপনারা সবাই আল্লাহ তায়ালার অশেষ রহমতে ভাল আছেন। আর ভালো থাকবেনই না কেন TwiceBD.com এর সাথে যারা থাকে তারা সকলেই ভালোই থাকে।

তো আমিও আপনাদের দোয়ায় ভাল আছি। আগেই বলে নেই এটা আমার এই ওয়েবসাইটে করা প্রথম পোস্ট। ভবিষ্যতে আমার কাছ থেকে আরও ইন্টারেস্টিং পোস্ট পাবেন এই ওয়েবসাইটের মাধ্যমে ।
তো আজকে আমি আপনাদের দেখাতে চলেছি যে কিভাবে আপনারা শেয়ারইট অ্যাপ ব্যবহার করবেন কোন রকম এডস্ ছাড়া।
তাছাড়া এর আরো কিছু সুবিধা রয়েছে। যেমন:
১। অ্যাপসটির এমবি সাইজ কম,
২। অ্যাপস এ কোনোরকম এডস ব্যবহার করা হয়নি,

৩। আগের অ্যাপ এর চেয়ে এই লাইট ভার্সন দ্রুত এবং ফাস্ট।
তো চলুন জেনে নেওয়া যাক কিভাবে আপনারা এই অ্যাপটি আপনাদের মোবাইলে ইন্সটল করবেন এবং কোথায় থেকে ডাউনলোড করবেন।
এই অ্যাপসটি ডাউনলোড করার জন্য আপনাকে গুগোল প্লে স্টোরে গিয়ে সার্চ করতে হবে Shareit Lite লিখে।
যারা এই কষ্টটুকু করতে চাচ্ছেন না তাদের জন্য আমি নিজে এই অ্যাপের লিঙ্ক দিয়ে দিচ্ছি সেখানে ক্লিক করে সরাসরি অ্যাপের ওইখানে চলে যেতে পারবেন।

[img id=400]

App Link: Click Here To Download
তো অ্যাপটি ইনস্টল করা হয়ে গেলে এইরকম একটি ইন্টারফেস শো করবে। এখান থেকে Open বাটনে ক্লিক করুন।
[img id=399]

[img id=398]
ক্লিক করার পরে শেয়ার ইট এর লোগো এক থেকে দুই সেকেন্ড থাকার পর আপনার ফোন নাম্বার দিয়ে রেজিস্ট্রেশন করার জন্য বলবে। এটা অপশনাল। মানে আপনি যদি ফোন নাম্বার দিয়ে রেজিস্ট্রেশন করেন তাহলেও হবে আবার যদি রেজিস্ট্রেশন না করেন তাও হবে।
এটা আপনার একান্ত বিষয়। তো রেজিস্ট্রেশন না করতে চাইলে নিচে ছোট করে স্কিপ অপশনটি আছে সেখানে ক্লিক করুন।
[img id=397]

ক্লিক করার পর কিছু পারমিশন চাইবে আপনার মিডিয়া ফাইল এর। সেটাকে Alow করে দিন। Alow করে দেওয়ার পর আপনাদের সামনে আবার সেই পরিচিত ইন্টারফেসটি চলে আসবে।
[img id=396]

আগের শেয়ারইট এর যেভাবে ফাইল ট্রান্সফার এবং রিসিভ করেছেন এটাতেও সেম একই কাজ। তবে আগেরটার থেকে এই শেয়ার ইট লাইট ভার্সনে আপনি অনেক বেশি সুবিধা পাচ্ছেন যা আমি উপরে আলোচনা করেছি।

এই ছিল আজকের টিউটোরিয়াল। আশাকরি টিউটোরিয়ালটি ভালো লেগেছে। ভবিষ্যতে ইনশাল্লাহ এর চেয়েও ভালো ভালো ইন্টারেস্টিং টিউটোরিয়াল নিয়ে আপনাদের সামনে হাজির হবো। তাই আমার পাশে থাকার জন্য আপনাদের অনুরোধ করছি।

যদি টিউটোরিয়ালটি ভালো লেগে থাকে তাহলে অবশ্যই লাইক এবং কমেন্ট করবেন কারণ আপনার একটা লাইক আমাকে অনুপ্রেরণা যোগাবে আমার পরবর্তী পোস্টের জন্য।

(এটা আমার প্রথম পোস্ট তাই ভুলত্রুটি হওয়া অস্বাভাবিক নয়। যদি আমার কোন ভুল ত্রুটি হয়ে থাকে তাহলে ক্ষমার দৃষ্টিতে দেখবেন এবং সংশোধন করে দেওয়ার চেষ্টা করবেন ধন্যবাদ পোস্টটি পড়ার জন্য)।